রাতের পাখিদের সাথে রিক্সায় আধা ঘন্টা ১০০টাকা……

0
69

ঢাকার প্রাণ কেন্দ্র ফার্মগেটে অবস্থিত বাংলাদেশার জাতীয় সংসদ ভবন।কিন্তু এই সংসদ ভবন,বিজয় স্বরনী,চন্দ্রিমা উদ্যান গিরে গড়ে উঠেছে রাতের পাখিদের অবাদ বিচরন। সকল কিবা রাতে সব সময় সংসদ ভবনের আশে পাশে যেমন দেখা যায় প্রেমিক প্রেমিকা যুগলদের। আবার দেখা মেলে কিছু হাই মেকাপ নেওয়া কিছে মেয়ে বা মাঝ বয়সী নারীদের।যাদের ঘিরে কৌতুহলের শেষ নেই।

এখন চলছে সিয়াম সাধনার মাস রমজান। কিন্তু এই মাসেও থেমে নেই এই পাখিদের আনাগোনা।সন্ধ্যা নামতেই চলে আসে তারা।সিগারেট দোকানী দুলাল সরকার বলেন,মামা ঈদ আইছে তো, তাই হেরা পরিবারের সক্কলের লিগা টেকা জোগাড়ে বাইরাইছে।কিন্তু পুলিশ যেন দেখাও কিছু দেখাছে না। তাদের নাকের ডগায় দিয়ে চলছে এই ব্যবসা।অন্য আরেক জন পান সিগারেট বিক্রেতা বলেন, তয় সাবধান!একবার সুযোগ পাইলে,আপনারে ফাঁদে ফেইল্লা মোবাইল, টেকা, আর যা কিছু আছে,সব লয়া যাইবো গা।

সংসদ ভবনের সামনের ফুটপাত প্রতিদিন সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত থাকে সরগরম। ভ্রমণ পিয়াসী ছাড়াও সেখানে ভিড় করেন হকার, বেকার, ভবঘুরেসহ নানান কিসিমের মানুষ-জন। আর সন্ধ্যা ঘনালে আধো আলো ছায়াতে প্রেমিক-প্রেমিকা যেন বেসামাল হয়ে পড়েন।অনেকে মনের খোরাক মিতাতে গিয়ে হারিয়েছেন সব।আমার এমন ও ঘটেছে জান যাবার উপক্রম হয়েছে্ । আর কতদিন চলবে এভাবে প্রকাশ্যে দেহব্যবসা।জানাযায় টাঙ্গাইলের পল্লী থেকে আসা শাহনাজ পারভিন বলেন, স্যার, আমরা কী না খাইয়া থাকবো? প্যাটের দায়ে বাইছা নিছি এই পথ। জীবনের তাগিদে এই ব্যবসা করি।

এই ব্যাপারে জানতে চাইলে শেরে বাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মোমিন বলেন, এমন অভিযোগ আমাদের কাছে এসেছে। সামনে ঈদ তাই তাদের বিচরণ কিছুটা বেড়েছে। তবে খুব তাড়াতাড়ি এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here